হাঁটুর চোটে বাংলাদেশ সফরে আসা হয়নি অ্যারন ফিঞ্চের। নিয়মিত অধিনায়ককে ছাড়াই বৃহস্পতিবার বাংলাদেশে আসলেও এখনও অধিনায়কের নাম ঘোষণা করেনি ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। অস্ট্রেলিয়ার কয়েকটি গণমাধ্যমের মতে, বাংলাদেশ সফরে অজিদের নেতৃত্ব দেয়ার দৌড়ে আছেন ৪জন।

এরা হলেন ম্যাথু ওয়েড, মিচেল মার্শ, ময়েসেস হেনরিক্স এবং অ্যালেক্স ক্যারি। তবে ফিঞ্চ আশাবাদী বাংলাদেশের মাটিতে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে ক্যাঙ্গারুদের নেতৃত্ব দেবেন ওয়েড। ক্রিকেট ডট কম ডট এইউ এই তথ্য দিয়েছে। এদিকে বাংলাদেশের মাটিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলেছে অস্ট্রেলিয়া।

যেখানে ওয়ানডে সিরিজ ২-১ ব্যবধানে জিতলেও টি-টোয়েন্টি সিরিজে ৪-১ ব্যবধানে হেরেছে অজিরা। ক্যারিবিয় দ্বীপপুঞ্জে সিরিজ চলাকালীন কেনসিংটন ওভালের উইকেট কথা বলেছে বোলারদের পক্ষে। যা বাংলাদেশের মাটিতেও থাকবে বলে মনে করছেন ম্যাথু ওয়েড।

আর এই দুই সিরিজের অভিজ্ঞতা বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার উপকারে আসবে বলে মনে করছেন তিনি। ওয়েড বলেন, ‘কেনসিংটন ওভালে উইকেট থেকে বোলাররা সহায়তা পেয়েছে। বাংলাদেশেও এমনটা হবে মনে হচ্ছে। তবে এটা বিশ্বকাপের প্রস্তুতির জন্য ভালো দিক। আপনি যতক্ষণ উইকেটগুলোতে না খেলছেন ধারণা পাবেন না।

আপনি নিয়মিত খেললে রান বের করার পথ খুঁজে পাবেন।’ ‘আমি ভাগ্যবান যে এমন উইকেটে খেলার অভিজ্ঞতা আছে। ভারতে খেলেছি, এছাড়া উপমহাদেশেও খেলেছি। রান কিভাবে করতে হয় সে সম্পর্কে ধারণা আছে। এখানে আপনি অস্ট্রেলিয়ার উইকেটে যেমন খেলেন সেভাবে খেললে সফল হবেন না।

আমি মনে করি গত কয়েক ম্যাচে আমরা সেটা বুঝতে পেরেছি এবং এটা একটা ইতিবাচক দিক’ আরও যোগ করেন অজি এই ওপেনার। বৃহস্পতিবার বাংলাদেশে এসে এই মুহূর্তে তিন দিনের কোয়ারেন্টাইনে আছে অস্ট্রেলিয়া। ৩ আগস্ট শুরু হবে ৫ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। দ্বিতীয় ম্যাচ হবে ৪ আগস্ট।

একদিনের বিরতি দিয়ে ৬, ৭ ও ৯ আগস্ট মাঠে গড়াবে বাকি তিন ম্যাচ। সবগুলো ম্যাচই মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে হবে। ম্যাচ শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৬টায়। এর আগে ২০১৭ সালে সর্বশেষ টেস্ট সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে এসেছিল অজিরা। এরপর ২০২০ সালে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের সূচি থাকলেও সফরটি বাতিল করে তারা।