সোশ‍্যাল মিডিয়ায় (Social Media) ট্রোলিং(Trolling) এখন সেলিব্রিটিদের কাছে যেন একেবারে জলভাত পরিণত হয়েছে। এখন এমনই অবস্থা হয়েছে যে দেখে মনে হয় সমালোচকরা যেন সবসময় আড়ি পেতে

বসে রয়েছেন কখন সেলিব্রেটিরা সোশ্যাল মিডিয়ায় কোনো কিছু পোস্ট করবেন আর তার সেই ব‍্যাপারটা নিয়ে ট্রোল করে মজা লুটবেন। প্রেগন্যান্সির পর থেকে এমনটাই হয়ে চলেছে টলি অভিনেত্রী শুভশ্রী গাঙ্গুলীর (Subhashree Ganguly) সাথে।

মা হওয়ার পর মেয়েদের শারীরিক গঠনে পরিবর্তন আসা ভীষণই স্বাভাবিক এবং বিজ্ঞানসম্মত একটি বিষয়। ব্যাতিক্রম নন অভিনেত্রী শুভশ্রী গাঙ্গুলীও।আর তাতেই আপত্তি নেটিজেনদের একাংশের।

প্রেগন্যান্সির (Pregnancy)পর থেকে অভিনেত্রী সোশ্যাল মিডিয়ায় যাই পোস্ট করছেন তা নিয়েই শুরু হয়ে যাচ্ছে নেটিজেনদের ব্যাপক সমালোচনা। মাত্র কয়েকদিন আগেই তাই শুভশ্রীকে রোগা হওয়ার একরাশ পরামর্শ দিয়েছিলেন একদল নেটিজেন।

শুভশ্রীর চেহারা নিয়ে তাঁদের যেন মাথা ব্যাথার শেষ নেই। তাই তাঁর ফটোশ্যুটের ছবি দেখে অনেকেই ব্যাঙ্গ করে শুভশ্রীকে বলেছিলেন “আরও রোগা হন, দেখতে সুন্দর লাগব”,আবার কেউ বলেছিলেন

“এ বাবা এত মোটা হয়ে গিয়েছেন!” ইউভান (Yuvan) হওয়ার পর থেকেই এমন কটাক্ষের শিকার হয়েছেন শুভশ্রী। তবে এবার বডি শেমিংয়ের বিরুদ্ধে পাল্টা কষিয়ে জবাব দিলেন টলিউড নায়িকা।

নিন্দুকদের মুখে ঝামা ঘষে উত্তরে পাল্টা শুভশ্রী বলেছিলেন,’বেশ কিছুদিন ধরেই আমার শারীরিক গঠন নিয়ে কথা বলা হচ্ছে, এমনকী জিম করে রোগা হওয়ার পরামর্শও দেওয়া হচ্ছে। তাঁদের উদ্দেশে বলব, মা হওয়া আমার কাছে সবথেকে গর্বের।

আর মা হওয়ার সময় শারীরিক গঠন নয় বরং সন্তানের স্বাস্থ্যের কথাই মাথায় থাকে, আমারও তাই হয়েছিল।’এখন শুভশ্রীর ছেলে ইউভানের বয়স মাত্র দেড় বছর। ছেলেকে সামলানোর পাশাপাশি এখন ধীরে ধীরে

নিজের ফর্মে ফিরে আসছেন অভিনেত্রী।আজ তারই একঝলক দেখা গেল অভিনেত্রীর ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে। সবাইকে অবাক করে দিয়ে সেখানে রেড হট ড্রেসে একেবারে বোল্ড লুকে পরপর দুটি ছবি শেয়ার করেছেন রাজ ঘরণী।

সেই ছবিতে শুভশ্রীর শরীরে মেদের লেশমাত্র চোখে পড়ছে না। এই ছবি দেখে অনুরাগীরা যেমন প্রশংসা করেছেন, তেমনি এসেছে কটাক্ষও। একজন শুভশ্রীর এই ছবি দেখে সন্দেহ প্রকাশ করে লিখেছেন তিনি কি ছবিতে ফটোশপ করে হঠাৎই এত রোগা হয়ে গেলেন!